1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. zahangiralam353@gmail.com : Channel Inani :
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ০৭:২৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
আল্লামা ক্বারী কামাল চিরনিদ্রায় শায়িত:জানাজায় মানুষের ঢল উখিয়ায় পালংখালী- থাইংখালী খাল সংস্কার না করার ফলে জনজীবনে দুর্ভোগ মহেশখালীতে পাহাড়ধসে ২ জনের মৃত্যু,ঢলে তলিয়ে গেছে ২শতাধিক বাড়িঘর,রাস্তাঘাট ও জানমালের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ঈদগাঁও -ঈদগড় -বাইশারী সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন এক ব্যবসায়ীর আর্তনাদ সরকারের প্রতি আবেদন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী গ্রাম অঞ্চলে দিন দিন চুরির ঘটনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। হ্নীলার রংগীখালীতে অতিবৃষ্টির ফলে প্লাবিত হওয়ায় ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাবাসী মুর ঈদগড়ে পাহাড়ী ঢলের পানিতে নিন্মাঞ্চল প্লাবিত, চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন মহলের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সাঁকো দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ পারাপার ঘুমধুমে বৃষ্টির পানিতে সাঁতার কাটতে গিয়ে শিশুর মৃত্যু
শিরোনাম
আল্লামা ক্বারী কামাল চিরনিদ্রায় শায়িত:জানাজায় মানুষের ঢল উখিয়ায় পালংখালী- থাইংখালী খাল সংস্কার না করার ফলে জনজীবনে দুর্ভোগ মহেশখালীতে পাহাড়ধসে ২ জনের মৃত্যু,ঢলে তলিয়ে গেছে ২শতাধিক বাড়িঘর,রাস্তাঘাট ও জানমালের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ঈদগাঁও -ঈদগড় -বাইশারী সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন এক ব্যবসায়ীর আর্তনাদ সরকারের প্রতি আবেদন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী গ্রাম অঞ্চলে দিন দিন চুরির ঘটনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। হ্নীলার রংগীখালীতে অতিবৃষ্টির ফলে প্লাবিত হওয়ায় ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাবাসী মুর ঈদগড়ে পাহাড়ী ঢলের পানিতে নিন্মাঞ্চল প্লাবিত, চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন মহলের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সাঁকো দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ পারাপার ঘুমধুমে বৃষ্টির পানিতে সাঁতার কাটতে গিয়ে শিশুর মৃত্যু

সকলের সহযোগিতায় বাঁচতে চান বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত রামুর ঈদগড়ের কাশেম

  • আপডেট করা হয়েছে মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১
  • ৬৩ বার পড়া হয়েছে

 

কামাল শিশির,রামু

কক্সবাজার রামু উপজেলার ঈদগড় ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মোঃ শরিফ পাড়া এলাকার সাবেক মেম্বার জাফর আলমের ছেলে মোঃ আবুল কাশেম প্রকাশ ব্যদেলো দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন রোগে ভুগছেন

বর্তমানে তার পায়ের দু’টি ভাল্ব নষ্ট । পরিবার নিয়ে বেঁচে থাকার স্বপ্ন দিনদিন দুঃস্বপ্ন হয়ে যাচ্ছে। চোখেমুখে অন্ধকার। চিন্তিত হয়ে পড়ছে তিন সন্তানের সংসার নিয়ে কি করবে।

পরিবারের একমাত্র উপার্জন কারী ছিলেন সে ।
পেশায় দিনমজুর। দিনে এনে দিনে খায়। বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর কাজ করতে পারেনা।

নিজ গ্রামে দেন একটা ছোট চায়ের দোকান।
তাও হলো না হঠাৎ অবশ হয়ে গেল দুই পা।
হাঁটাচলা করতে পারছেনা প্রায় ২বছর ।
জমানো যা অর্থ ছিলো তা দিয়ে নিজের চিকিৎসাও করাতে পারলেন না।

অন্যদিকে তার এক বাচ্চা ছিলেন ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত। দীর্ঘ নয় মাস চিকিৎসা করেও তাকে বাঁচাতে পারেনি। খরচ হয় প্রায় ৪ লাখ টাকা।

বর্তমানে স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে অনেক কষ্টে জীবন যাপন করছেন। পরিবারের খরচ জোগাতে ১২ বছরের আরেক ছেলে ঈদগাঁহ স্টেশনে রিক্সা চালায়।

সাপ্তাহ-দশদিনে চার- পাঁচশত টাকা টাকা বাড়িতে পাটান। সেই টাকায় তাদের সংসার চলে নানা কষ্টে।

যে সময়ে স্কুলে লেখা পড়া করার কথা সে সময়ে ছেলেকে বেঁচে নিতে হয়েছে এই পেশা।
কতটা নির্মম, কত কষ্টের জীবন তাদের। শুনলে হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়।

উন্নত চিকিৎসার জন্য আপাতত প্রায় ২ লক্ষাধীক টাকার প্রয়োজন ।
যা তার পরিবারের পক্ষে একা বহন করা সম্ভব হচ্ছেনা। স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে সে সকলের সাহায্য ছেয়েছেন।

সকলের অার্থিক সহযোগিতায় ফিরতে পারে স্বাভাবিক জীবন যাপনে। প্রয়োজনে বিকাশ ও নগদ পার্সোনাল করুন উক্ত নাম্ভারে ০১৮২২০৪৯৩৪৫ ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

Designed by: Nagorik It.Com