1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. zahangiralam353@gmail.com : Channel Inani :
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:৫৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ফইল্যাতলি কিচেন মার্কেট অনুমোদনহীন নতুন স্থাপনায় সৌন্দর্যহানি সদর উপজেলা প্রেসক্লাবের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন সদর উপজেলা শাখার কমিটি গঠন ৩ কোটি টাকার চোরাইপণ্য জব্দ দাবী বিজিবির চট্টগ্রাম ১০ আসনের এমপি বাচ্চুর জামিন মঞ্জুর আবুল কালাম চট্টগ্রাম এম আর আয়াজ রবি সভাপতি ও জাহাঙ্গীর আলমকে সাঃ সম্পাদক করে বাপা উখিয়া উপজেলা কমিটি অনুমোদন নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত শান্ত বিজিবি সতর্ক বিমান হামলার আতঙ্ক চট্টগ্রামের সিআরবিতে চসিকের বইমেলাকে ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা সেনা, ৩৩০ জনকে ফেরত পাঠানো হল। মহেশখালীতে বন কর্মকর্তা ভূমিখেকোদের যোগসাজশে উপকূলীয় এলাকায় প্যারাবনের অস্তিত্ব সংকটে
শিরোনাম
ফইল্যাতলি কিচেন মার্কেট অনুমোদনহীন নতুন স্থাপনায় সৌন্দর্যহানি সদর উপজেলা প্রেসক্লাবের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন সদর উপজেলা শাখার কমিটি গঠন ৩ কোটি টাকার চোরাইপণ্য জব্দ দাবী বিজিবির চট্টগ্রাম ১০ আসনের এমপি বাচ্চুর জামিন মঞ্জুর আবুল কালাম চট্টগ্রাম এম আর আয়াজ রবি সভাপতি ও জাহাঙ্গীর আলমকে সাঃ সম্পাদক করে বাপা উখিয়া উপজেলা কমিটি অনুমোদন নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত শান্ত বিজিবি সতর্ক বিমান হামলার আতঙ্ক চট্টগ্রামের সিআরবিতে চসিকের বইমেলাকে ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা সেনা, ৩৩০ জনকে ফেরত পাঠানো হল। মহেশখালীতে বন কর্মকর্তা ভূমিখেকোদের যোগসাজশে উপকূলীয় এলাকায় প্যারাবনের অস্তিত্ব সংকটে

টেকনাফ পৌরসভার হেচ্ছার খাল ও বাস টার্মিনাল এখন মাদক নিয়ে আসার নিরাপদ রুট

  • আপডেট করা হয়েছে বুধবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ১৬৭ বার পড়া হয়েছে

 

মোহাম্মদ ইউনুছ অভি টেকনাফ

টেকনাফ পৌরসভার নাইট্যং পাড়াস্থ হেচ্ছার খাল এখন ইয়াবা আইস সহ মাদক নিয়ে আসার নিরাপদ রুটে পরিনত হয়েছে। সন্ধ্যারপর জোয়ার আসার সাথে সাথে শুরু হয় মিয়ানমার থেকে ছোট ছোট নৌকা যোগে মাদক আসার পাল্লা চলে বলে স্থানীয় লোকজন জানান। সুত্রে জানায়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকা ভুক্ত কয়েক জন এই মাদক সিন্ডিকেটের মুল হোতা। এদের মাধ্যমে মাদকের বড় বড় চালান এনে উক্ত এলাকাসহ পৌরসভার বিভিন্ন দরিদ্র লোকজনদের বাড়িতে মজুদ করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সু-কৌশলে চালান দেয়। ইহা এখন নিত্য নৈমিত্তিক সুচিতে পরিনত হয়েছে।

এদিকে টেকনাফ মডেল থানার সাবেক ওসি প্রদীপের আমলে যখন ইয়াবা মাদক পাচারকারী দেরকে আটক ও ক্রসফায়ার দেওয়া হচ্ছে, তখন ঐ মাদক সিন্ডিকেটের সদস্যরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে ছিল। প্রদীপ যুগের অবসান হওয়ার সাথে সাথে আবার ঐ মাদক সিন্ডিকেটের সদস্যরা এলাকায় এসে পুরোদমে মাদকের ব্যবসা শুরু করেছে বলে স্থানীয় সুত্রে জানা যায়। এই সিন্ডিকেটের সাথে আরও একটি বড় সিন্ডিকেট রযেছে। তাদের কাজ হচ্ছে দেশের অভ্যান্তরে বিভিন্ন কৌশলে ইয়াবা ও আইস পাচার করা। এই সিন্ডিকেটকে সার্বক্ষনিক সহযোগিতা করে যাচ্ছে উক্ত এলাকার কয়েক জন ইয়াবা গডফাদার। সেখানে ১০ /১৫ জনের একটি সিন্ডিকেট রয়েছে। স্থানীয় সচেতন মহলের দাবী এই সিন্ডিকেট সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্হা গ্রহন করা না হলে টেকনাফ পৌরসভাসহ উপজেলার গোটা যুব সমাজ ধবংসের দ্বার প্রান্তে চলে যাবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন । এ ব্যাপারে তারা আইন শৃংখলা বাহিনীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ ব্যাপারে মাদক দ্রব্যনিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের টেকনাফ বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক সিরাজুল মোস্তফা জানান, আমরা সঠিক তথ্য পেলে মাদক কারবারিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্হা নেব।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

Designed by: Nagorik It.Com